ভারত সফর দিয়ে শুরু হচ্ছে ইংল্যান্ডের নতুন বছর

নতুন বছরের শুরুতে ভারত সফরে যাবে ইংল্যান্ড। চার টেস্ট, পাঁচ টি-টোয়েন্টি এবং তিন ওয়ানডে ম্যাচের সিরিজ খেলতে ইংল্যান্ড ক্রিকেট দল জানুয়ারির শেষ সপ্তাহে ভারত পৌঁছাবে। তবে লম্বা এই সফরটি অনুষ্ঠিত হবে কেবল তিনটি স্টেডিয়ামে। করোনার হুমকির কারণেই সিরিজ লম্বা হলেও ভেন্যু কমিয়ে এনেছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড।

সফরে ভারতের বিপক্ষে চারটি টেস্ট খেলবে ইংল্যান্ড। সিরিজের প্রথম টেস্ট শুরু হবে ৫ ফেব্রুয়ারি। যার মধ্যে ১ লাখ ১০ হাজার দর্শক ধারণক্ষমতাসম্পন্ন আহমেদাবাদের সর্দার প্যাটেল স্টেডিয়ামের ফ্লাডলাইটের আলোয় তৃতীয় টেস্ট খেলবে দু’দল।  

সিরিজের প্রথম দুই টেস্ট হবে চেন্নাইয়ে এবং পরের দুই টেস্ট হবে আহমেদাবাদে।  

টেস্ট সিরিজ ছাড়াও দু’দল আহমেদাবাদে ৫টি টি-টোয়েন্টি এবং পুনেতে ৩টি ওয়ানডে সিরিজ খেলবে।  

প্রত্যেক ম্যাচ সমর্থকবিহীন জৈব-নিরাপত্তা বলয়ের মধ্যে হবে।  

ভারত সফরের আগে শ্রীলঙ্কা সফরে যাবেন ইংল্যান্ড ক্রিকেট দল। সেখান থেকেই ২৭ জানুয়ারি চেন্নাইয়ে পৌঁছাবে ইংলিশরা।

চলতি বছর সেপ্টেম্বর-অক্টোবরে ভারত সফরে আসার কথা ছিল ইংলিশ ক্রিকেট দলের; কিন্তু করোনার কারণে তা আগেই বাতিল হয়ে যায়। এ কারণে ঠিক হয়, জানুয়ারি থেকে মার্চের মধ্যে টেস্ট ও সীমিত ওভারের সিরিজ আয়োজন করা হবে। পরের বছরই আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। তাই ছোট ফরম্যাটে বেশি জোর দিচ্ছে বিসিসিআই।