নড়াইলে ও কুষ্টিয়ায় নদীতে নিখোঁজ ৩ জন

নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার মধুমতি নদীর কালনা ঘাট এলাকায় ইঞ্জিন চালিত নৌকা থেকে পড়ে বাবা-ছেলে নিখোঁজ রয়েছেন। তাদের উদ্ধারে অভিযান চালাচ্ছে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল। সকাল ৮টা থেকে নদীর দুই কিলোমিটার পর্যন্ত স্রোতের গতিপথে এ অভিযান চালাচ্ছে ডুবুরি দল।

নিখোঁজ হওয়া ব্যাক্তির নাম মুসা। তিনিএকজন পুলিশ সদস্য।

শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে একটি ট্রলার যোগে মুসা আলী তার পরিবারের ৬ জন সদস্য নিয়ে ঘোরার উদ্দেশ্যে কালনা মধুমতি নদীতে ঘুরতে যান। ট্রলার যোগে ফেরার পথে ইঞ্জিন বিকল হয়ে গেলে পানির স্রোতে ট্রলার নির্মানাধীন কালনা ব্রিজের পিলারে গিয়ে সজোরে ধাক্কা লাগলে পুলিশ সদস্য মুসার কোলে থাকা ৭ মাসের ছেলে পানিতে পড়ে যায়। তখন বাচ্চাকে উদ্ধার করার জন্য বাবা মুসা আলী পানিতে লাফ দেন। এরপর থেকে বাবা-ছেলে নিখোঁজ রয়েছে।

এদিকে কুষ্টিয়ার কুমারখালীর ছেঁউরিয়া মন্ডল পাড়ার এক ব্যক্তি নদীতে গোসল করতে যেয়ে নিখোঁজ রয়েছেন। ডুবুরী দল নদীতে তল্লাশি করে গত ২ দিনেও তার কোন সন্ধান পাননি।

নিখোঁজ হওয়া ব্যক্তি মৃত শহিদুল ইসলামের ছেলে মো: সেলিম হোসেন।

তিনি শুক্রবার সকাল ১০ টায় নদীতে গোসল করতে গেলে আর ফিরে আসেননি বলে জানায় পরিবারের লোকজন।