কোষ্ঠকাঠিন্য এমন একটি সমস্যা যা কমবেশি প্রায় সকলকে ভোগায়। পানি কম খাওয়া, অতিরিক্ত ভাজাপোড়া খাওয়া কিংবা শাক-সবজি কম খাওয়া ইত্যাদি নানা কারণে  দেখা দেয় এ সমস্যা। রোজার সময় এই সমস্যা দেখা দেয় অনেকের।

চিকিৎসকের পরামর্শে ওষুধ খেতে পারেন, তবে তার নানা পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াও কিন্তু রয়েছে। তাই ওষুধ না কিনে খাবারের তালিকায় কিছু পরিবর্তন এনে পেতে পারেন এ সমস্যার সমাধান।

জেনে নিন কোষ্ঠকাঠিন্য সমস্যা সমাধানে খাবারের তালিকা-

কমলা : ভিটামিন-সি এর ঘাটতি পূরণে কাজ করে কমলা। এতে আছে ভিটামিন সি, মিনারেল আর ডায়াটেরি ফাইবার।

পদ্ধতি: একটি কমলা খোসা ছাড়িয়ে নিন। ব্লেন্ড করে রসটুকুর সঙ্গে সামান্য লবণ মিশিয়ে নিতে পারেন। এবার খেয়ে নিন। এটি আপনাকে কোষ্ঠকাঠিন্য থেকে মুক্তি দেবে।

লেবু : লেবু যে শুধু কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা দূর করতে সাহায্য করে তা-ই নয়, এতে থাকা ভিটামিন ও মিনারেল আমাদের শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও বাড়িয়ে তোলে। এর সঙ্গে জিরা ও মধু যোগ করে খেলে তো কথাই নেই!

পদ্ধতি: একটি লেবুর অর্ধেকটা নিয়ে রস বের করে নিন। এককাপ গরম পানি নিন। এবার গরম পানিতে লেবুর রসটুকু মেশান। সঙ্গে মেশান এক চা চামচ মধু ও আধা চা চামচ জিরা গুঁড়া। ভালো করে মিশিয়ে খেয়ে নিন। কোষ্ঠকাঠিন্য থেকে মুক্তি মিলবে সহজেই।

নাসপাতি : নাসপাতি খেতে হবে রস করে। এর মধ্যে আছে সরবিটল। এই সরবিটল মল নির্গমনে বাঁধা দূর করে, তাই এই রস কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করতে ভীষণ কার্যকরী। এর সঙ্গে মিশিয়ে নিতে পারেন সামান্য লেবুর রস।

পদ্ধতি: দু’টি নাসপাতির বীজ বের করে ফেলে দিন। নাশপাতি ছোট ছোট টুকরা করে কেটে নিন। এবার ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে নিন। একটি ছাকনিতে রস ছেঁকে নিন। এবার দুই চামচ লেবুর রস ও একটি চিমটি লবণ মেশান। এবার খেয়ে নিন। ইফতারে এটি খেলে ভালো ফল পাবেন।

আপেল : আপেলে আছে প্রচুর ফাইবার। আরও আছে ভিটামিন আর মিনারেল। আপেলের রস কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে আপনাকে সুস্থ রাখতে সাহায্য করবে। এর সঙ্গে সামান্য মৌরি গুঁড়া করে মিশিয়ে নিতে পারেন। মৌরিতে আছে ডায়াটেরি ফাইবার।

পদ্ধতি: একটি আপেলের বীজ বের করে ফেলে দিন। আপেলটি ছোট ছোট টুকরা করে ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে নিন। আধা কাপ পানি মেশান। এবার একটি ছাঁকনিতে ছেঁকে রসটুকু বের করে নিন। এর সঙ্গে আধা চা চামচ মৌরির গুঁড়া মেশান। এরপর খেয়ে নিন। সাহরি বা ইফতার, আপনার সুবিধামতো সময়ে তৈরি করে খান এটি।