সেরা তারকা হিসেবে ফোর্বসের তালিকায় বাংলাদেশের পরীমনি

অনলাইনে প্রভাব বিস্তার করা এশিয়ার মধ্যে সেরা ১০০ জনের তালিকা প্রকাশ করেছে আমেরিকান বিজনেস ম্যাগাজিন ‘ফোর্বস’। সেখানে বাংলাদেশের একমাত্র তারকা হিসেবে জায়গা পেয়েছেন অভিনেত্রী পরীমনি।

এই তালিকায় নাম রয়েছে বলিউড ‘শাহেনশাহ’ অমিতাভ বচ্চন, অক্ষয় কুমার, শাহরুখ খান, আলিয়া ভাটসহ বেশ কয়েকজন হিন্দি সিনেমার তারকার।

সোমবার প্রকাশ করা হয় ওই তালিকা। এই তালিকায় ৭০তম স্থানে রয়েছেন পরীমনি। সেখানে পরীমনি সম্পর্কে লেখা হয়, ‘ফেসবুকে প্রায় ১ কোটি ফলোয়ার রয়েছে এ অভিনেত্রীর। তার পারিবারিক নাম উল্লেখ করা হয়েছে শামসুন্নাহার স্মৃতি।’

ফোর্বস ম্যাগাজিনের মতো গুরুত্বপূর্ণ এবং প্রভাবশালী গণমাধ্যমের এ তালিকা প্রকাশের পর থেকেই ভক্ত-অনুরাগীদের শুভেচ্ছায় ভাসছেন ‘স্বপ্নজাল’খ্যাত এ নায়িকা। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পরীমনিকে অভিনন্দন জানাচ্ছেন তার সহকর্মীরাও।

এই তালিকার প্রথম স্থানে রয়েছে দক্ষিণ কোরিয়ার ব্যান্ড ‘ব্ল্যাকপিঙ্ক’, এরপরে অবস্থান চাইনিজ গায়ক ও অভিনেতা জ্যাকসন ইয়ের। তৃতীয় অবস্থানে রয়েছেন থাইল্যান্ডের অভিনেত্রী দাভিকা হর্নে এবং চতুর্থ অবস্থানে অমিতাভ বচ্চনের নাম দেখা যাচ্ছে। এই তালিকায় বলিউড থেকে অমিতাভ ছাড়া আরও আছেন শাহরুখ খান, মাধুরী দীক্ষিত, অক্ষয় কুমার, হৃত্বিক রোশন, শহিদ কাপুর, ক্যাটরিনা কাইফ, আনুশকা শর্মা, আলিয়া ভাট, জ্যাকলিন ফার্নান্দেজ, রণবীর সিং, শ্রেয়া ঘোষাল ও নেহা কক্কর।

পাকিস্তানি অভিনেত্রী মাহিরা খান, গায়ক আতিফ আসলাম, হলিউড অভিনেতা হিউ জ্যাকমন, ক্রিস হেমসওয়ার্থেরও নাম রয়েছে এ তালিকায়।

‘ভালোবাসা সীমাহীন’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে চলচ্চিত্রে পা রাখেন পরীমনি। ক্যারিয়ারের শুরুতে সর্বাধিক সংখ্যক চলচ্চিত্রে চুক্তিবদ্ধ হয়ে আলোচনায় উঠে আসেন তিনি। অভিষেকের বছরই তার অভিনীত ছয়টি চলচ্চিত্র মুক্তি পায়। তারপর আর পেছন ফিরে তাকাতে হয়নি তাকে।

‘আমার প্রেম আমার প্রিয়া’ সিনেমার মাধ্যমে অভিনয়ের জন্য ২০১৯ সালের সিজেএফবি পারফরম্যান্স অ্যাওয়ার্ডে সেরা অভিনেত্রীর (সমালোচক) পুরস্কার পেয়েছেন তিনি। বর্তমানে বেশকিছু চলচ্চিত্র নিয়ে ব্যস্ত কাটাচ্ছেন পরীমনি। তার মধ্যে রয়েছে ‘প্রীতিলতা’, তৌকীর আহমেদ পরিচালিত একটি সিনেমা। ১১ ডিসেম্বর মুক্তি পাবে পরীমনী অভিনীত নতুন ছবি ‘বিশ্বসুন্দরী’। এখানে তার বিপরীতে আছেন সিয়াম। ছবিটি পরিচালনা করেছেন চয়নিকা চৌধুরী।