শীতকালে কমলার যত উপকারীতা

বিভিন্ন ধরনের কমলার ঋতু শীতকাল আসছে। কমলা ভিটামিন সি, মিনারেল এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট স্বাদে ভরপুর। এই সাইট্রাস জাতীয় ফলটি শুধু স্বাদের পরিবর্তনই ঘটায় না। এটি শীতকালে ত্বক ও চুলের শুষ্কতাসহ বিভিন্ন সমস্যাও দূর করে।

মিষ্টি ও রসালো শীতকালীন এই ফলটি সুস্বাদু এবং এর উপকারিতা অনেক। গবেষণা বলছে কমলা হার্টের রোগ ও ক্যান্সার প্রতিরোধে সাহায্য করে। কমলা ব্লাড প্রেসার ও শর্করাও কমায়। কিছু গবেষণায়ি স্মৃতিশক্তির ক্ষেত্রে কমলার ইতিবাচক প্রভাবও লক্ষ্য করা গিয়েছে।

এখানে কমলার কিছু উপকারিতা উল্লেখ করা হলো:

* কমলা রক্তনালী ও গ্যাস্ট্রোইনটেস্টাইনাল পরিষ্কার করে ফলে হজম শক্তি বৃদ্ধি পায়।

* কমলাকে হার্টের টনিক হিসেবে বিবেচনা করা হয়। এটি ক্লান্তি দূর করে, শক্তি বৃদ্ধি করে এবং রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়।

* কমলা একটি সাইট্রাস জাতীয় ফল। এ জাতীয় ফলগুলো বদহজম, পেটের ব্যথা, কৃমির উপদ্রব এবং কোলিক ব্যথা কমাতে সাহায্য করে।

* কমলা আয়রনের ভালো উৎস না হওয়া সত্ত্বেও আয়রন শোষণে সাহায্য করে। তাই আয়রন সমৃদ্ধ খাবারের সাথে কমলা খেলে ভালো ফল পাওয়া যায়।

* স্কিনের জন্যও কমলা উপকারী। ফলটি স্কিনের ক্ষতিরোধ করে।

* কমলা ব্লাড প্রেসার এবং ব্লাড সুগারের লেভেল নিয়ন্ত্রণে রাখে।

* কমলা শর্করা কমায় এবং চোখের জন্যও ভালো।

* কমলা কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে।

* কমলা ক্যান্সারের সম্ভাবনা কমায়।