বয়সকালীন সমস্যা মোকাবিলায় সাহায্য করে পপকর্ন

39

বিকেল হলেই একটু হালকা স্ন্যাকস খেতে মন চায়? চিপস, কুকিজ, ডোনাটস দেখে লোভ সামলাতে না পারলেই বিপদ। স্ন্যাকস মানেই কি অস্বাস্থ্যকর? যদি নিয়মিত ইভনিং স্ন্যাকস থেকেও পুষ্টি পেতে চান তা হলে খান পপকর্ন।

পপকর্ন ফ্যাট ফ্রি, সুগার ফ্রি ও লো ক্যালোরি খাবার। ১ কাপ পপকর্ন মানে মাত্র ৩০ ক্যালোরি। অথচ ফাইবার থাকায় অনেকক্ষণ পেট ভরা রাখে। খিদে কম পায়। এই ভাবেই ওজন কমাতে সাহায্য করে পপকর্ন।

অ্যান্টি-অক্সিড্যান্টে সমৃদ্ধ পপকর্ন রক্তে ফ্রি-র‌্যাডিক্যালস-এর মাত্রা কমাতে সাহায্য করে। যা চুল পড়া, অ্যালঝাইমার’স-এর মতো বয়সকালীন সমস্যা মোকাবিলায় সাহায্য করে।

পপকর্ন গোটা শস্য। ফলে এই খাবারে ফাইবার, মিনারেল, জটিল কার্বোহাইড্রেট, ভিটামিন ই, ভিটামিন বি কমপ্লেক্সের পরিমাণ প্রচুর। যা হজমে সাহায্য করে ও পেট পরিষ্কার রাখে।

পপকর্ন প্রচুর পরিমাণে ফাইবারে পরিপূর্ণ। ফলে তা রক্তনালী ও ধমনীরে দেওয়ালে কোলেস্টেরল জমতে বাধা দেয়। ফলে রক্তে কোলেস্টেরলের মাত্রা কমে ও হার্টের স্বাস্থ্য ভাল রাখে।

পপকর্নে ফাইবারের পরিমাণ খুব বেশি থাকার কারণে রক্তে শর্করার মাত্রা ও ইনসুলিন নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে পপকর্ন। ডায়াবেটিকরা নিয়মিত ডায়েটে ১ কাপ ঘরে তৈরি পপকর্ন রাখতে পারেন।