বগলের নিচে কালচেভাব দূর করতে

76

প্রাকৃতিক উপাদান দিয়ে দূর করা যায় শেইভিংয়ের কারণে হওয়া বগলের কালচেভাব।

রূপচর্চা-বিষয়ক ওয়েবসাইটে এই বিষয়ের ওপর প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে সেসব পদ্ধতি জানানো হল।

লেবুর রস: লেবুতে আছে প্রাকৃতিক ব্লিচিং উপাদান যা ত্বকের বিবর্ণভাব দূর করতে সাহায্য করে। গোসলের সময় আক্রান্তস্থানে দুতিন মিনিট ধরে লেবু ঘষুন। গোসলের পরে ত্বকে ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন, সাত থেকে ১০ দিনের মধ্যেই ফলাফল চোখে পড়বে।

আলুর রস: আলুও খুব ভালো প্রাকৃতিক ব্লিচ এবং ‘অ্যান্টি-ইরিটেন্ট’ বা প্রদাহ-হীন যা বাহুমূলের নিচের রং হালকা করতে এবং জ্বালাভাব থেকে তাৎক্ষণিক আরাম দিতে সাহায্য করে।

আক্রান্ত স্থানে পাতলা করে কাটা আলুর টুকরা বা রস ১০ থেকে ১৫ মিনিট লাগিয়ে রাখুন। ভালো ফলাফলের জন্য দিনে দুবার ব্যবহার করুন।

অ্যাপল সাইডার ভিনিগার: এতে আছে মৃদু অ্যাসিড যা ত্বকের মৃত কোষ এবং ফাঙ্গাস দূর করে।

দুই টেবিল-চামচ ভিনিগার ও বেইকিং সোডা মিশিয়ে আক্রান্ত স্থানে লাগান। ১০ মিনিট পরে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। ভালো ফলাফলের জন্য সপ্তাহে তিনবার ব্যবহার করুন।

জলপাইয়ের তেল: এক টেবিল-চামচ জলপাইয়ের তেল ও বাদামি চিনি মিশিয়ে তা দিয়ে দুএক মিনিট স্ক্রাব করুন। পাঁচ মিনিট অপেক্ষা করে কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে দুবার ব্যবহার করুন। ভালো ফলাফল পাওয়া যাবে।

অ্যালো ভেরা: বাজারে কিনতে পাওয়া যায় বা তাজা অ্যালো ভেরা নিয়ে আক্রান্ত স্থানে লাগান। ১৫ মিনিট পরে ধুয়ে ফেলুন। এটা প্রাকৃতিক এক্সফলিয়েটর যা মৃত কোষ দূর করে। এর ব্যাকটেরিয়া-রোধী উপাদান ত্বক কোমল ও মসৃণ করে