চীনে ৮০ হাজার গাধা পাঠাচ্ছে পাকিস্তান

12

গাধায় ভরে গেছে পাকিস্তানে৷ এবার চীনে রফতানির ভাবনা৷ ভেঙে পড়া অর্থনীতিকে পথে আনতে চীনকে গাধা রফতানির সিদ্ধান্তে সবুজ সঙ্কেত দিয়েছে ইমরান খানের সরকার৷ বিনিময়ে প্রচুর বিদেশি মুদ্রা ঘরে এনে কোষাগার ভরাতে চায় পাকিস্তান৷

গাধার সংখ্যার নিরিখে পাকিস্তান বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম দেশ৷ পাকিস্তানের গাধা কিনতে আগ্রহ দেখিয়েছে একটি চীনা কোম্পানি৷ এই গাধা তারা কৃষিকাজে ব্যবহার করবে৷

চীনা কোম্পানি যখন এই প্রস্তাবটি দেয় সেটি সঙ্গে সঙ্গে লুফে নেয় ইমরান খানের সরকার৷ গাধা রফতানির মাধ্যমে বাণিজ্যের নতুন দিক খুলে গেল পাকিস্তানের কাছে৷

হিসেব কষে তারা দেখেছে গাধা রফতানি করে বিপুল পরিমাণে ডলার দেশের রাজকোষে জমা পড়বে৷ তাতে কিছুটা হলেও হাল ফিরবে দেশের অর্থনীতির৷

ইমরান খান প্রশাসনের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, ওই চীনা কোম্পানি কৃষিকাজে গাধা ব্যবহারের আগ্রহ দেখিয়েছে যা পাকিস্তানে প্রথম৷

পরিকল্পনা অনুযায়ী, বিদেশি বিনিয়োগের মাধ্যমে দু’টি গাধা ভিত্তিক ফার্ম তৈরি করা হবে৷ এর জন্য প্রথম তিন বছরে পাকিস্তান চীনকে ৮০ হাজার গাধা রফতানি করবে৷

জিও নিউজ জানিয়েছে, চীনা কোম্পানি এর জন্য ৩ বিলিয়ন মার্কিন ডলার বিনিয়োগ করবে৷ চীনে গাধার কদর মারাত্মক৷

ট্র্যাডিশনাল চীনা মেডিসিন উৎপাদনে গাধার চামড়া ব্যবহার করা হয়৷ গিলাটিন তৈরি হয় গাধার চামড়া দিয়ে৷

শরীরের রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে গিলাটিন প্রয়োগ করা হয়৷ কিছুদিন আগে পাকিস্তান চীনকে গাড়ি ও চুল রফতানি করেছিল৷

এবার গাধা রফতানি করতে চলেছে৷ যা দেখে অনেকেই বলছে, সন্ত্রাসবাদকে সমর্থন করায় আগেই মার্কিন অনুদান বন্ধ হয়েছে পাকিস্তানের৷ তাই গাধা, চুল ও গাড়ি বিক্রি করে আর্থিক ঘাটতি পূরণের মরিয়া চেষ্টা চালাচ্ছে পাকিস্তান৷