উন্নত গাঁজা তৈরিতে ভারতে বিনিয়োগ করছে শিল্পপতিরা

78

গাঁজাকে এখন মাদক মানতে নারাজ অনেকেই। গাঁজার ঔষধিগুণ অনেক। সেই ঔষধিগুণের সন্ধানেই মুম্বাইয়ে একটি গবেষণাকেন্দ্র তৈরি হয়েছে। আর তাতেই বিনিয়োগ করছ তাবড় শিল্পপতিরা।

তার মধ্যে রয়েছেন রতন টাটা, গুগল ইন্ডিয়ার ম্যানেজিং ডিরেক্টর রঞ্জন আনন্দন। ইতিমধ্যেই সাড়ে ৬ কোটি টাকা গবেষণার জন্য সংগ্রহ করে ফেলেছে মুম্বইয়ের এই গাঁজা গবেষণা সংস্থাটি।

বম্বে হেম্প কোম্পানি নাম দিয়ে কাজ শুরু করেছে তারা। গবেষণাগারে এখন চাষ করা হচ্ছে গাঁজা। বিশেষজ্ঞদের দাবি মৃগী এবং ব্রেস্ট ক্যান্সারে নাকি অব্যর্থ ওষুধ তৈরি করা যায় এই গাঁজা থেকে।

ভারতে এই উদ্যোগ প্রথম হলেও আমেরিকা এবং চীনে এতে অনেকটাই এগিয়ে গেছে। বেজিংয়ে গাঁজা গবেষণা কেন্দ্রের জন্য গাঁজা চাষে বাড়িয়ে দিয়েছে চীন।

এই গাঁজা নিয়ে গবেষণার জন্য বিভিন্ন দেশ থেকে অর্থ সাহায্য আসে। আমেরিকা এরজন্য ২০১৬–য় প্রায় ৬৬.‌৩ মিলিয়ন ডলার অনুদান পেয়েছিল। চীনও এই অনুদান সংগ্রহে কোনও অংশে কম যাচ্ছে না।

তার পরেই রয়েছে ভারত। সেখানেও বিনিয়োগে আগ্রহ দেখাচ্ছেন দেশের ধনী শিল্পপতিরা। কাজেই গাঁজা মানেই যে সেটা মাদক এমন ভাবার এখন আর কোনও কারণ নেই। ‌‌