নতুন বছরের নিউ ইয়র্কে প্রথম শিশুর মা বাংলাদেশি

18

যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্কে নতুন বছরের ঠিক রাত ১২টা ১ মিনিটে জন্ম নিয়েছে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত কাজী আরিয়ানা শিরিন। ২০১৮ সালের প্রথম জন্ম নেয়া শিশুর এ স্বীকৃতি মার্কিন মুল্লুকের সকল মিডিয়ায় ফলাও করে প্রচার ও প্রকাশিত হয়েছে।

নিউ ইয়র্ক সিটির কুইন্সের ফ্লাশিং হাসপাতালের মুখপাত্র ডা. এন্ড্রু রুবিন গণমাধ্যমকে জানান, গত এপ্রিল যুক্তরাষ্ট্রে আসা তানিয়া শিরিন (২৫) এর ডেলিভারির তারিখ ছিল ১০ জানুয়ারি।

তবে কদিন থেকেই তার ব্যথা উঠে। ৩০ ডিসেম্বর শিশুর মা তানিয়া প্রচণ্ড ব্যথা অনুভব করলে এই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। টানা ৩৬ ঘণ্টা প্রসব যন্ত্রণার পর নতুন বছরের শুভলগ্নেই আরিয়ানা ভূমিষ্ট হয়।

জ্যামাইকায় স্বামী ইমরান নাজির (২৮) এর সাথে বসবাস করেন তানিয়া। পেশায় ট্যাক্সি ড্রাইভার নাজির যুক্তরাষ্ট্রে এসেছেন ২০১০ সালে। নাজির খুবই খুশী নতুন বছরের প্রথম নবজাতকের পিতা হতে পেরে। ‘বছরে প্রথম নেয়া শুভ জন্ম নেয়া শিশুরা বরাবরই স্পেশাল’ বলে উল্লেখ করেন ।

এই হাসপাতালে গত বছরও বর্ষশুরুর সময়ে আরেকটি শিশু জন্মেছে। হাসপাতালের জন্যে এটি অত্যন্ত সৌভাগ্যের ব্যাপার।

ডা. এন্ড্রু রুবিন জানান, জন্মের সময় শিশুটির ওজন ছিল ৪ পাউন্ড, ১১.৫ আউন্স এবং লম্বায় ১৮ ইঞ্চি। প্রসূতি এবং নবজাতক উভয়েই সুস্থ রয়েছেন।

তানিয়া উৎফুল্লচিত্তে গণমাধ্যমকে বলেন, নতুন বছরের প্রথম সন্তানের মা হতে পেরে আমি খুবই খুশী। সে হচ্ছে আমার প্রথম সন্তান।