কৃষক বনে গেলেন নড়াইলের পুলিশ সুপার!

21

বাংলাদেশ কৃষি প্রধানে দেশ। এদেশের সিংহ ভাগ মানুষ প্রত্যাক্ষ ও প্ররোক্ষভাবে কৃষি কাজের সাথে জড়িত। সেই কৃষিকে আরো বেগবান করার উদ্যোগ নিলেন পুলিশ সুপার।

হাল নিয়ে জমিতে নামলেন পুলিশ সুপার। দেখে বোঝার উপায় নেই যে তিনি আইনশৃংখলাবাহিনীর একজন উর্ধ্বতন কর্মকতা।

একেবারে কৃষকদের মতোই মাথায় গামছা বেঁধে, এক হাতে লাঙ্গলের মুঠো আর অন্য হাতে গরু তাড়ানোর লাঠি নিয়ে হাঁটু সমান কাদাজলে নামলেন তিনি।

তিনি একাই নন হাল চাষে সঙ্গে থাকা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ শরফুদ্দিন ও আরআই মিরাজ মিয়া ছিলেন। তারাও মোহাম্মদ শরফুদ্দিনের সঙ্গে জমিতে নেমে পড়েন ও ধান রোপণ করেন।

গতকাল (শুক্রবার) নড়াইল পুলিশ লাইনে পুলিশ সদস্যদের সঙ্গে নিয়ে জমিতে ধান রোপণ করেন নড়াইলের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন।

এদিন প্রায় ২০ শতাংশ জমিতে বোরো ধানের চারা রোপন করেন পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন।

জমিটি অনাবাদী ছিল জানিয়ে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন জানান, পুলিশ লাইনের কোনো জমি অনাবাদী থাকবে না। কৃষিপ্রধান উর্বর এই বাংলাদেশে কোনো জমিই অনাবাদী থাকা উচিত নয়। তাই আমরা জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে ধান রোপণ করেছি।

তিনি আরও বলেন, জনবহুল এই দেশে খালি জায়গা ফেলে রাখলে চলবে না। পতিত জমিতে ফসল ফলাতে হবে।