মালয়েশিয়ায় শ্রমবাজারের দ্বার উন্মোচনে ৬ সদস্যের প্রতিনিধি দল ঢাকায়

86

মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার উন্মুক্তকরন সংক্রান্ত বৈঠকে যোগ দিতে মঙ্গলবার বাংলাদেশে আসছেন মালয়েশিয়ার ৬ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল ।

মালয়েশিয়ার হিউম্যান রিসোর্স মন্ত্রণালয়ের পলিসি বিভাগের আন্ডার সেক্রেটারি এমডিএম. বেট্টী হাসানের নেতৃত্বে প্রতিনিধিদলের অন্যান্য সদস্যরা হলেন, মালয়েশিয়ার পেনিনস্যুলার ডিপার্টমেন্টের উপপরিচালক জেনারেল (অপারেশন) আসরি এ বি রহমান, মালয়েশিয়ার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ফরেন ওয়ার্কার্স ম্যানেজমেন্ট ডিভিশনের আন্ডার সেক্রেটারি জমরি মত জিন, হিউম্যান রিসোর্স মন্ত্রণালয়ের লিগ্যাল ডিভিশনের লিগ্যাল অ্যাডভাইজর মো. নওয়ায়ী ইসমাইল, হিউম্যান রিসোর্স মন্ত্রণালয়ের পলিসি ডিভিশনের সহকারী সচিব শাহাবুদ্দিন আবু বকর ও মালয়েশিয়ার পেনিনস্যুলার ডিপার্টমেন্টের সিনিয়র সহকারী পরিচালক নওরলিয়া আনাক জওয়র।

বুধবার প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে বাংলাদেশ-মালয়েশিয়ার মধ্যে দ্বিতীয় জয়েন্ট ওয়ার্কিং গ্রুপের গুরুত্বপূর্ণ সভা অনুষ্ঠিত হবে। এদিকে, যৌথ ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠক সফল করার লক্ষ্যে মালয়েশিয়াস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের রাষ্ট্রদূত মহ.শহীদুল ইসলাম ও শ্রম কাউন্সিলর, অতিরিক্ত সচিব মো. সায়েদুল ইসলামও এখন বাংলাদেশে অবস্থান করছেন।

জয়েন্ট ওয়ার্কিং গ্রুপের সভায় মালয়েশিয়ায় শ্রমবাজার চালু সংক্রান্ত যাবতীয় বিষয়াদি গুরুত্ব পাবে বলে জানিয়েছে প্রবাসী মন্ত্রণালয় ও মালয়েশিয়াস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের নির্ভরযোগ্য একটি সূত্র। সফররত মালয়েশিয়ার প্রতিনিধিদল মঙ্গলবার প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসির সঙ্গেও বৈঠকে মিলিত হওয়ার কথা রয়েছে। প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রী ইতিমধ্যেই ঘোষণা দিয়েছেন, সব বৈধ রিক্রুটিং এজেন্সিই মালয়েশিয়ায় কর্মী পাঠানোর সুযোগ পাবে।

এদিকে, ১০ রিক্রুটিং এজেন্সির স্বত্বাধিকারীর রিট পিটিশনের পরিপ্রেক্ষিতে সোমবার হাইকোর্ট ডিভিশন এক রায়ে মালয়েশিয়াসহ সব দেশে বৈধ রিক্রুটিং এজেন্সিগুলো জনশক্তি রফতানির সুযোগ দেয়ার আদেশ জারি করেছেন। আদালত মালয়েশিয়ায় কর্মী প্রেরণে ১০ সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে একটি আন্তঃমন্ত্রণালয় কমিটি করে তদন্ত করে ৬ মাসের মধ্যে আদালতে প্রতিবেদন দাখিলের জন্য প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রণালয়কে নিদের্শ দিয়েছেন। ব্যারিস্টার রাশনা ইমাম এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।