দুবাইতে হবে ‘বঙ্গবন্ধু স্কুল’

96

নারায়ণগঞ্জ ৫ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব এ কে এম সেলিম ওসমান সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইয়ে একটি ‘বঙ্গবন্ধু স্কুল’ প্রতিষ্ঠার ঘোষণা দিয়েছেন। রবিবার রাতে আরব আমিরাতের আজমানে নারায়ণগঞ্জ শহর ও বন্দরকে সকল নাগরিক সুযোগ সুবিধা সমৃদ্ধ আধুনিক শহরের পাশাপাশি ব্যবসাবান্ধব ও রপ্তানিমুখী শিল্প অঞ্চলে রুপান্তরিত করার লক্ষে নারায়ণগঞ্জ প্রবাসীদের আয়োজিত মত বিনিময় সভা ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এই ঘোষণা দেন।

সাংসদ আলহাজ্ব এ কে এম সেলিম ওসমান বলেন, ‘কর্মজীবী প্রবাসী ও ছাত্রদের সুবিধার্থে দুবাইয়ে হবে একটি বঙ্গবন্ধু স্কুল। পড়ালেখার পাশাপাশি আরো কাছাকাছি থেকে বঙ্গবন্ধুকে জানতে পারবে শিক্ষার্থীরা।’ আজমান প্রবাসী নারায়ণগঞ্জবাসীর দৃষ্টি আকর্ষণ করে তিনি বলেন, ‘সু-শিক্ষা, শিক্ষার মান উন্নয়ন ও সু-চিকিৎসা পাওয়া প্রত্যেকের অধিকার। ‌স্কুল প্রতিষ্ঠার জন্যে আপনারা দুবাইয়ে একটি ভাড়া বাড়ি দেখুন, আমিরাতের দূতাবাসের সহযোগিতায় অতিস্বত্তর এই স্কুলের কাজ হাতে নেয়া হবে।’

প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি আরো বলেন, ‘২০১৬ সালে বড় ভাই নাসিম ওসমানের মৃত্যুর পর বিকেএমইএ, এফবিসিসিআই, নারায়ণগঞ্জ চেম্বার সহ প্রধানমন্ত্রীর অভিপ্রায়ে ব্যবসায়ীক সংগঠনের পাশাপাশি জাতীয় সংসদ সদস্য উপ-নির্বাচন করি এবং নির্বাচিত হই। শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও মাদকের করাল গ্রাস এবং সর্বপরি শ্রমিক অসন্তোষ সহ শ্রমিকদের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছি। আগামীতেও এই অসুস্থ শরীর নিয়ে কাজ করে যাবো।’

এসময় তিনি নারায়ণগঞ্জের সামগ্রিক উন্নয়ন ও ভবিষ্যতে বন্দরের আরো অগ্রগতির লক্ষ্যে নানামুখী উন্নয়ন পরিকল্পনা প্রবাসীদের উদ্দেশ্যে তুলে ধরেন।

আহাম্মেদ মাহতাব উদ্দিনের সভাপতিত্বে ও গোলাম জাকারিয়া ভূঁইয়ার সঞ্চালনায় সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট নারী উদ্যোক্তা ও নারায়ণগঞ্জ জেলার পুরস্কারপ্রাপ্ত সর্বোচ্চ করদাতা আলহাজ্ব নাসরিন ওসমান। নাসরিন ওসমান বলেন, ‌‘বিদেশের মাটিতে নারায়ণগঞ্জ প্রবাসীদের ঐক্যবদ্ধ অবস্থান দেখে আজমানকেই নারায়ণগঞ্জ মনে হচ্ছে। আপনাদের ভালবাসা ও দোয়ায় এবং উনার ( সেলিম ওসমান) প্রচন্ড মনোবলের কারণে নারায়ণগঞ্জে দ্রুত যে উন্নয়ন হয়েছে, আগামীতে সংসদ সদস্য না হলেও একই ধারাবাহিকতা রেখে আপনাদের পাশে থেকে অসম্পূর্ণ কাজগুলো সম্পন্ন করতে তিনি প্রতিশ্রুতি বদ্ধ।’

সভায় আরো বক্তব্য রাখেন হানিফ মিয়া, মোহাম্মদ আমজাদ, হাসান মাহমুদ, মোক্তার হোসেন, ওবাইদুল্লাহ রাজু, আবুল হোসেন, শফিকুল ইসলাম, গাজী মাসুদ রানা, আরমান হোসেন প্রমুখ।