পাকিস্তানে ৩০-৪০ হাজার জঙ্গি আছে বলে ট্রাম্পের কাছে স্বীকার করেছেন ইমরান খান

ভারত কয়েক দশক ধরে আন্তর্জাতিক মহলে অভিযোগ করে এসেছে, পাকিস্তানের মদদপুষ্ট জঙ্গিরা কাশ্মীরে ও অন্যত্র সক্রিয়। এতদিনে স্বয়ং পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান সবই মেনে নিলেন, তাও যুক্তরাষ্ট্র সফরে গিয়ে। তিনি মঙ্গলবার বলেন, আমাদের দেশে ৩০ থেকে ৪০ হাজার সন্ত্রাসবাদী রয়েছে। তারা আফগানিস্তানে ও কাশ্মীরে লড়াই করে এসেছে। ইমরানের এই মন্তব্যে বিস্মিত হয়েছেন অনেকে। কেন তিনি এতদিন বাদে এভাবে সত্যটা স্বীকার করে নিলেন অনেকে ভেবে পাচ্ছেন না।

ইমরান এখন আমেরিকা সফরে গিয়েছেন। সেখানে তিনি ইনস্টিটিউট অব পিস-এ এক অনুষ্ঠানে বলেন, আমি ক্ষমতায় আসার আগে কোনও সরকারই সন্ত্রাসবাদী গোষ্ঠীগুলোকে দমন করতে চায়নি। তাদের রাজনৈতিক সদিচ্ছার অভাব ছিল। তার কথায়, আমরা ক্ষমতায় আসার আগে যারা সরকারে ছিলেন, তাদের কারও জঙ্গি দমনের সদিচ্ছা ছিল না। আমাদের দেশে এখনও ৩০ থেকে ৪০ হাজার প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত সন্ত্রাসবাদী আছে। তারা আফগানিস্তানে ও কাশ্মীরের নানা প্রান্তে লড়াই করেছে।

ইমরান আরও জানান, তালিবানের সম্পর্কে পাকিস্তানের মানুষের চিন্তাভাবনা আমূল বদলে যায় ২০১৪ সালে। সেবার তারা আর্মি পাবলিক স্কুলে ঢুকে দেড়শ শিশুকে হত্যা করে। আমরা তার পরেই সিদ্ধান্ত নিলাম, কোনও জঙ্গি গোষ্ঠীকে আমাদের দেশ থেকে অপারেট করতে দেব না। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর দাবি, আমার সরকার জঙ্গি গোষ্ঠীগুলোকে নিরস্ত্র করা শুরু করেছে। তাদের ঘাঁটিগুলো দখল করা হয়েছে। আগের কোনও সরকার এই পদক্ষেপ নেয়নি। গত ১৫ বছরে তাদের ওপরে সরকারের কোনও নিয়ন্ত্রণই ছিল না। বাস্তব পরিস্থিতিটা কী, আমেরিকাকে জানানোও হয়নি। সূত্র : দ্য ওয়াল

0

Related posts

Leave a Comment