নকল দুধের কারখানা সিলগালা

১৮ লিটার গরুর দুধ দিয়ে তৈরি হতো ২২শ’ ৯২ লিটার পাস্তুরিত দুধ!সেই প্রতিষ্ঠানের আবার আছে বিএসটিআই এর সনদ!বিভিন্ন ধরনের রাসায়নিক মিশিয়ে এভাবে নকল দুধ তৈরি করা নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারের ‘বারো আউলিয়া ডেইরী মিল্ক অ্যান্ড ফুড লিমিটেড’ নামের প্রতিষ্ঠানটিতে আজ বুধবার (৭ আগস্ট) অভিযান চালিয়েছে র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। ঘটনার সত্যতা মেলায় এই নকল দুধ উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানটি সিলগালাসহ এর মালিকের বিরুদ্ধে মামলাসহ ৫০ লাখ টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। এছাড়া আরও ১২ জনকে দেওয়া হয়েছে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড। আজ দুপুর ১২টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত উপজেলার পুরিন্দা বাজারে অবস্থিত প্রতিষ্ঠানটিতে এ অভিযান চালানো হয়।

র‌্যাব সদর দফতরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. সারওয়ার আলমের নেতৃত্বে চালানো ওই অভিযানে সহযোগিতা করেন র‌্যাব-১১ এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক জসিম উদ্দিন চৌধুরী।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম জানান, স্ক্রিম পাউডার, লবণ, সোডিয়াম, পানি ও বিভিন্ন রাসায়নিক দ্রব্যের সংমিশ্রণে ভেজাল ও নকল দুধ ও দই উৎপাদন ও বাজারজাত করে আসছিল দুধ উৎপাদনকারী ওই প্রতিষ্ঠান।

অভিযান শেষে র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালানো হয়। এ কারখানায় ১৮ লিটার গরুর দুধ দিয়ে ২২শ’ ৯২ লিটার পাস্তুরিত দুধ তৈরি হতো। এতে স্ক্রিম পাউডার, লবণ, সোডিয়াম, পানি ও বিভিন্ন রাসায়নিক দ্রব্যের সংমিশ্রণ দেওয়া হতো। এ ছাড়া, অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে ভেজাল দুধ তৈরি ও উৎপাদনের তারিখ নিয়ে প্রতারণার দায়ে প্রতিষ্ঠানটিকে এ শাস্তি দেওয়া হয়েছে। র‍্যাবের ম্যাজিস্ট্রেট আরও জানান, প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান আক্কাস আলী ও এমডি আজগর আহমেদ পলাতক থাকায় তাদের বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, ১৪ কোম্পানির পাস্তুরিত দুধের বিষয়ে তিনটি সংস্থার প্রতিবেদন বিবেচনায় নিয়ে গত ২৮ জুলাই হাইকোর্ট আদেশ দেন, ওই কোম্পানিগুলোকে দুধ উৎপাদন ও বিপণন পাঁচ সপ্তাহের জন্য বিরত রাখতে হবে। ওই ১৪ কোম্পানির একটি হলো বারো আউলিয়া ডেইরী মিল্ক অ্যান্ড ফুডস লিমিটেড।

0

Related posts

Leave a Comment