সরকার কথা বলার ন্যূনতম অধিকারটিও কেড়ে নিয়েছে : মির্জা ফখরুল

14

দেশে ন্যূনতম গণতান্ত্রিক চর্চা না থাকায় অনুমতির পরও কর্মসূচিতে সরকার বাধা দিচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

শনিবার সকালে রমনার ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন সেমিনার হলে জিয়া পরিষদের আলোচনাসভা করতে না দেয়ার প্রতিবাদে ইনস্টিটিউশনের সামনে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, সরকার দেশের গণতন্ত্র ধ্বংস করে দিয়েছে। সারা দেশে যে কথা বলা ও সভা-সমাবেশ করার কোনো গণতান্ত্রিক অধিকার নেই, তারই প্রমাণ আজকে প্রোগ্রাম করতে না দেয়া।

এ সরকার ক্ষমতাগ্রহণের পর থেকে দেশের গণতান্ত্রিক পরিবেশকে ধ্বংস করে দিয়েছে। বিরোধী দলের কথা বলার অধিকার কেড়ে নিয়েছে। আমি এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ফ্যাসিবাদী সরকার কথা বলার ন্যূনতম অধিকারটিও কেড়ে নিয়েছে। আজ প্রশাসন আমাদের জিয়া পরিষদের পূর্বঘোষিত কর্মসূচি পালন করতে দিচ্ছে না।

ফখরুল বলেন, এ স্বৈরাচারী সরকার জনগণের বুকের ওপর পাথরের মতো চেপে বসেছে। বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের শুধু গ্রেফতার-নির্যাতন করেই ক্ষান্ত হয়নি, সভা-সমাবেশের রাজনৈতিক অধিকারও কেড়ে নিয়েছে।