দুরন্ত জয়ে লিগ শীর্ষে বার্সেলোনা

44

বার্সেলোনা: পিছিয়ে পড়েও দুরন্ত জয় ছিনিয়ে নিল বার্সেলোনা। শনিবাসরীয় লা লিগায় অ্যাওয়ে ম্যাচে রিয়াল সোসিয়েদাদকে ২-১ গোলে পরাজিত করল তারা। এদিন ম্যাচের প্রথমার্ধে এক গোলে পিছিয়ে পড়ে লা লিগার ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নরা।

বিরতির পর সুয়ারেজ এবং ডেম্বেলের গোলে টানা চতুর্থ জয় নিশ্চিত হয় ভালভের্ডের ছেলেদের। পাশাপাশি লিগের অপর ম্যাচে রিয়াল মাদ্রিদ ড্র করায় চলতি মরশুমে প্রথমবার একক ভাবে লিগ শীর্ষে চলে গেল কাতালান ক্লাবটি।

চ্যম্পিয়ন্স লিগ অভিযান শুরু করার আগে বুসকেটস এবং কুটিনহোকে ছাড়াই এদিন প্রথম একাদশ সাজান বার্সা কোচ ভালভের্ডে। হোম ম্যাচের অ্যাডভান্টেজ নিয়ে ম্যাচের ১২ মিনিটে আর্টিজ এলাস্তোন্দোর গোলে এগিয়ে যায় সোসিয়েদাদ। প্রথমার্ধে প্রতিপক্ষ রক্ষণকে টপকে ডেডলক খুলতে পারেননি সুয়ারেজরা।

বিরতির পর ম্যাচের রাশ নিজেদের হাতে নিতে বুসকেটস এবং কুটিনহোকে মাঠে নামিয়ে দেন বার্সা কোচ। যদিও সুযোগ নষ্ট না করলে দ্বিতীয়ার্ধে ব্যবধান বাড়িয়ে নিতে পারত রিয়াল সোসিয়েদাদ। কিন্তু প্রতিপক্ষ স্ট্রাইকারদের ব্যর্থতায় এযাত্রায় রক্ষা পায় বার্সা।

বিপক্ষের ব্যর্থতার সুযোগ সুদে আসলে তুলে নেয় গতবারের চ্যাম্পিয়নরা। ৬৩ এবং ৬৬ মিনিটে দুটি ক্রস টলিয়ে দিয়ে যায় সোসিয়েদাদ রক্ষনকে। তিন মিনিটের ব্যবধানে ক্রস দুটি গোলে কনভার্ট করে বার্সাকে এগিয়ে দেন সুয়ারেজ ও ডেম্বেলে।

জয়ের পর ম্যাচের নায়ক সুয়ারেজ জানান, ‘গতবছরও পিছিয়ে থেকে এমন অনেক ম্যাচ জিতেছিলাম আমরা। যা আমাদের চ্যম্পিয়ন করতে সাহায্য করেছিল। প্রথমার্ধে সোসিয়েদাদ টেক্কা দিলেও কুটিনহো নামতেই ম্যাচে ফিরি আমরা।’ এই জয়ের ফলে চার ম্যাচে ১২ পয়েন্ট নিয়ে লিগ শীর্ষে চলে গেল বার্সেলোনা।

বার্সেলোনা জিতলেও লিগের অপর ম্যাচে অ্যাথলেটিকো বিলবাওয়ের কাছে আটকে গেল রিয়াল মাদ্রিদ। এর ফলে লিগে প্রথম পয়েন্ট নষ্ট করল লোপেতেগুইয়ের ছেলেরা। ঘরের মাঠে এদিন প্রথমার্ধের ৩২ মিনিটে গোল হজম করে পিছিয়ে পড়ে রিয়াল।

৬৩ মিনিটে পরিবর্ত হিসেবে মাঠে নেমেই দলকে সমতায় ফেরান ইস্কো। সমতায় ফিরে জয়ের লক্ষ্যে ঝাঁপিয়ে পড়েন বেল, অ্যাসেনসিওরা। একের পর এক আক্রমণ করলেও ম্যাচে দ্বিতীয়বারের জন্য আর ফায়দা তুলতে পারেনি রিয়াল। ফলে ড্র করেই সন্তুষ্ট থাকতে হয় তাদের। চার ম্যাচ থেকে রিয়াল মাদ্রিদের সংগ্রহ ১০ পয়েন্ট।