ছাত্রলীগ যেন ভুল না করে : জাফর ইকবাল

10

সরকারি চাকরিতে কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের সঙ্গে সংঘাতে জড়িয়ে কোনো ভুল না করার জন্য ছাত্রলীগকে পরামর্শ দিয়েছেন সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক লেখক মুহম্মদ জাফর ইকবাল।

তিনি বলেন, “যখন সরকার কোনো আন্দোলনের সম্মুখীন হয় তখন সরকারের পুলিশ বাহিনীর সঙ্গে ছাত্রলীগও এসে পড়ে। ছাত্রলীগ যারা করে তারাও তো ছাত্র; তারা পড়াশোনা করবে। তারা যেন সাধারণ শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কোনো সংঘাত সৃষ্টি করে ভুল না করে।”

বুধবার সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক ভবনে জাফর ইকবালের কার্যালয়ে সাংবাদিকরা দেখা করলে তিনি এই পরামর্শ দেন।

জাফর ইকবাল বলেন, “তরুণ প্রজন্মের ওপর আমার আস্থা রয়েছে। বায়ান্নর ভাষা আন্দোলন থেকে শুরু করে এখন পর্যন্ত সমস্ত গুরুত্বপূর্ণ আন্দোলনে তরুণরা নেতৃত্ব দিয়েছে। আমি আশা করব তারা যেন সঠিক সিদ্ধান্ত নেয়।

“৫৬ শতাংশ কোটা এক হিসেবে অনেক বেশি। একসময় হয়ত এটার প্রয়োজন ছিল, তবে তা এখন একটা সঙ্গত সংখ্যায় নামিয়ে আনা দরকার।”

সরকারি চাকরিতে বিদ্যমান কোটা ব্যবস্থা সংস্কারের দাবিতে দীর্ঘদিন ধরে আন্দোলন করে আসছে ‘বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ’।

গত রোববার পুলিশ রাবার বুলেট ও কাঁদানে গ্যাসের শেল ছুড়ে আন্দোলনকারীদের শাহবাগ থেকে হটিয়ে দেওয়ার পর ছাত্রলীগের একদল নেতা-কর্মী তাদের উপর চড়াও হয়। পরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে রাতভর সংঘর্ষ হয়।

বর্তমানে দেশে পাঁচ শতাংশ কোটা রাখা হয়েছে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর জন্য। প্রতিবন্ধীর জন্য এক শতাংশ, মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের জন্য ৩০ শতাংশ, নারী কোটা ১০ শতাংশ ও জেলা কোটা ১০ শতাংশ। সব মিলিয়ে কোটার জন্য বরাদ্দ ৫৬ শতাংশ।

ফলে এর কোনো শ্রেণিতে যারা পড়ে না তাদের প্রতিযোগিতা করতে হচ্ছে বাকি ৪৪ শতাংশের জন্য।