অপরিপক্ব আম পেড়ে বাজারজাতের চেষ্টা

রাজশাহী অঞ্চলের আমেরবাগানগুলোতে আম পাড়া শুরু হচ্ছে আজ । প্রশাসনের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী গুটিজাতের আম প্রথমে পাড়া হবে। মধ্য রমজানের পর পর্যায়ক্রমে বাজারে আসবে বিভিন্ন উন্নতজাত ও স্বাদের আম। তবে রমজানের কারণে অনেকেই এখন আম পাড়বেন না বলে জানা গেছে। মূলত ঈদের পরপরই পুরোদমে আম পাড়া শুরু হবে।

এদিকে উচ্চ আদালতের নির্দেশে আম বাগানে কড়া নজরদারি করছে পুলিশ প্রশাসন। এরপরও একশ্রেণির অসাধু আম ব্যবসায়ী অপরিপক্ব আম কেমিক্যালের মাধ্যমে পাকিয়ে বাজারজাতের অপচেষ্টা করছে। অধিক মুনাফার আশায় তারা এ ধরনের অপকর্মে লিপ্ত বলে জেলা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে।

পুঠিয়ায় সরকারি নিদের্শনা অমান্য করে অপরিপক্ব আম কেমিক্যালের সাহায্যে পাকিয়ে বাজারজাতের অপচেষ্টার ঘটনায় ছয়জনকে পাঁচদিন করে কারাদণ্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। এছাড়া তাদের কাছ থেকে ৩০ মণ লক্ষ্মণভোগ জাতের আম জব্দ করে প্রকাশ্যে বিনষ্ট করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত ১২ মে রাজশাহী জেলার বাগান থেকে আম পাড়ার তারিখ নির্ধারণ করে দিয়েছে জেলা প্রশাসন। ওইদিন দুপুরে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে আম চাষি, ব্যবসায়ী ও জনপ্রতিনিধিদের অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় বাগান থেকে আম পাড়ার তারিখ নির্ধারণ করে দেয় প্রশাসন।

রাজশাহীর জেলা প্রশাসক এস এম আবদুল কাদের বলেন, অপরিপক্ব আম কেমিক্যালের মাধ্যমে পাকিয়ে বাজারজাত ঠেকাতে কয়েক বছর থেকে আম নামানোর তারিখ নির্ধারণ করে দিচ্ছে প্রশাসন। রাজশাহীর আমের সুনাম ও চাষিদের নায্য দাম নিশ্চিত করার স্বার্থেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইফতে খায়ের আলম বলেন, হাইকোর্টের নির্দেশনার আলোকে জেলার প্রতিটি আমবাগানে নজরদারি করছে পুলিশ প্রশাসন। সোমবার দুপুরে পুঠিয়া উপজেলার সরিষাবাড়ি এলাকায় অপরিপক্ব আম পাড়ার খবর পেয়ে পুলিশ অভিযান চালিয়ে ৭০টি প্লাস্টিকের ক্যারেট ভর্তি ৩০ মণ অপরিপক্ব লক্ষ্মণভোগ আম জব্দ করে।

পরে পুঠিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মো. ওলিউজ্জামানের নেতৃত্বে পরিচালিত ভ্রাম্যমাণ আদালত অপরিপক্ব আম প্রক্রিয়াকরণ ও বাজারজাতের দায়ে আটক ছয়জনকে পাঁচদিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেয়। ওইদিন বিকালে দণ্ডিতদের কারাগারে পাঠানো হয়েছে। তিনি আমে নিষিদ্ধ কেমিক্যাল (রাসায়নিক বিষ) ব্যবহার না করতে আম ব্যবসায়ীদের প্রতি আহবান জানান।

জানা গেছে, সাধারণত সবার আগে পাকায় বিভিন্ন গুটিজাতের আম ১৫ মে থেকে পাড়া হবে। এরপর পর্যায়ক্রমে গোপালভোগ ২০ মে থেকে, রাণীপছন্দ ২৫ মে থেকে, খিরসাপাত বা হিমসাগর ২৮ মে থেকে, লক্ষ্মণভোগ বা লখনা ২৬ মে থেকে, ল্যাংড়া ৬ জুন থেকে, আম্রপালি ১৬ জুন থেকে, ফজলি ১৬ জুন থেকে এবং সব শেষে ১৭ জুলাই থেকে নামানো হবে আশ্বিনা জাতের আম।

0

Related posts

Leave a Comment